As-Sunnah Trust

আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট

আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট একটি অরাজনৈতিক, অলাভজনক শিক্ষা, দাওয়াহ ও পূর্ণত মানবকল্যাণে নিবেদিত সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠান মানবতার শিক্ষক, মানুষের মুক্তি ও শান্তির দূত, মানবসেবার আদর্শ, মহানবী মুহাম্মদ সা.-এর পদাঙ্ক অনুসরণ করে আর্তমানবতার সেবা, সমাজ সংস্কার, মহত্তম নীতিচেতনার সঞ্চার, কর্মসংস্থান তৈরি, দারিদ্র্য বিমোচন, ইসলামী তমদ্দুনের প্রসার, বহুমুখী শিক্ষায়ন প্রকল্প পরিচালনা, ত্রাণ বিতরণ, স্বল্পমূল্যে বা বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান, পরিচ্ছন্ন মানসিকতা গঠনে নিরন্তর নানা কর্মসূচি পালন, সর্বোপরি মৌখিক, লৈখিক ও আধুনিক সকল প্রচারমাধ্যম ব্যবহার করে মানুষকে মহান আল্লাহর আনুগত্য ও তাঁর রাসূলের অনুকরণে সত্য ও শান্তির পথে ডেকে এনে একটি আদর্শ কল্যাণসমাজ বিনির্মাণে যথাশক্তি প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রবন্ধ

আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট
প্রবন্ধ সমূহ

বিস্তারিত দেখুন

অডিও

আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট
অডিও সমূহ

বিস্তারিত দেখুন

ভিডিও

আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট
ভিডিও সমূহ

বিস্তারিত দেখুন

বুক শপ

আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট
প্রকাশনা সমূহ

বিস্তারিত দেখুন


ঢাকা

ঢাকা,বাংলাদেশ
ফজর

4:11 AM

জোহর

12:04 PM

আসর

4:40 PM

মাগরিব

6:35 PM

ইশা

7:55 PM

প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম

নূরানী বিভাগ

শিশু কিশোরদেরকে ধর্মীয় মূল্যবোধ, ধর্মীয় শিক্ষা ও ধর্মীয় পরিবেশের মধ্যে প্রাক-প্রাথমিক ও প্রাথমিক শিক্ষা প্রদানের জন্য আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট মাদরাসাতুস সুন্নাহ প্রাথমিক বিদ্যালয়টি পরিচালনা করছে।এ বিভাগের শিক্ষা কার্যক্রম পাঁচ বছর মেয়াদী।

বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ বোর্ড দ্বারা পরিচালিত, কুরআন কারীম হিফয করা মুসলিম জীবনের অন্যতম নেয়ামত, অনন্ত মর্যাদা ও সাওয়াবের উৎস। এ মর্যাদা ও সাওয়াব যেমন শিক্ষার্থীর তেমনি তার পিতামাতা ও স্বজনদের।

ইসলামী মূল্যবোধ ভিত্তিক প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা বিস্তার এবং ইসলামী জ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় বিশেষজ্ঞ আলেম তৈরী আস-সুন্নাহ ট্রাস্টের অন্যতম লক্ষ্য। আস-সুন্নাহ ট্রাস্টের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা বিভাগ “জামিআতুস সুন্নাহ নামে পরিচিত। যার অন্নতম প্রকল্প দাওরায় হাদীস বিভাগ অর্থাৎ কিতাব বিভাগ।

0

নূরানী
বিভাগ

0

হিফজ
বিভাগ

0

কিতাব
বিভাগ

0

উচ্চতর দাওয়াহ
বিভাগ

0

উচ্চতর হাদীস গবেষণা
বিভাগ

0

আল ফিক্হ ও আকীদা
বিভাগ

দান একজন মানুষকে সত্যিকারের মুমিন করে তোলে

আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর-আস সুন্নাহ মসজিদ কমপ্লেক্স

জাতি ও উম্মাহর কল্যাণার্থে পরিচালিত আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর-আস সুন্নাহ ট্রাস্টের নানামুখী কার্যক্রমের কেন্দ্রবিন্দু হবে আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর-আস সুন্নাহ মসজিদ কমপ্লেক্স। ইসলামী মূল্যবোধভিত্তিক প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা বিস্তার এবং ইলমী জ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় বিশেষজ্ঞ আলিম তৈরি এই কমপ্লেক্সের অন্যতম লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর-আস সুন্নাহ ট্রাস্ট

সুনির্দিষ্ট কোনো খাতে দান করলে সেটা আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট সে খাতেই ব্যয় করে থাকে। আর সাধারণ তহবিলের অর্থ ট্রাস্ট পরিচালিত সকল কল্যাণমূলক কার্যক্রমের জন্য উন্মুক্ত থাকে এবং আস-সুন্নাহ’র দীনি শিক্ষা গবেষণা, প্রশিক্ষণ, মিডিয়া, মানব সেবা ও দাওয়াহমূলক যাবতীয় উদ্যোগ পরিচালনায় এই খাতের অর্থ ব্যয় করা হয়।

নিয়মিত অনুদান তহবিল


আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর-আস সুন্নাহ ট্রাস্টের নিয়মিত আয়ের উৎসের অন্যতম মাধ্যম স্থায়ী সদস্য হতে প্রাপ্ত অর্থ। যারা মাসিক নির্ধারিত অর্থ প্রদান করেন। এ অর্থ আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর-আস সুন্নাহ ট্রাস্টের শিক্ষা, উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা, প্রশিক্ষণ, দুস্থ্য মানবতার সেবা ও উন্নয়ন, মিডিয়া-প্রচার ও দাওয়াহ কার্যক্রমসহ সার্বিক উন্নয়নে ব্যবহার করা হয়।

যাকাত তহবিল (সামাজিক উন্নয়নের সেতু বন্ধন)

যাকাতের উদ্দেশ্য দারিদ্র্য বিমোচন ও সম্পদের পবিত্রকরণ। যাকাত এভাবে দেয়া উচিত যে, যাতে আল্লাহর নির্ধারিত খাতে যাকাত প্রদান করা হয়। যার ফলে সমাজ, জাতি, রাষ্ট্র ও বিশ্ব দারিদ্র্যমুক্ত হয়। সমাজের দারিদ্র্য বিমোচনে যাকাতের গুরুত্ব অপরিসীম। এজন্য যাকাতকে ইসলামে এত গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর-আস সুন্নাহ ট্রাস্ট দাতব্য চিকিৎসালয়

২০১১ ইং (১৪৩২ হি.) থেকে অসহায়, গরীব ও দুস্থ্যদের জন্য যাকাত ভিত্তিক চিকিৎসা প্রকল্প চালু করা হয়। প্রতি সপ্তাহে এম.বি.বি.এস ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মাধ্যমে বিনামূল্যে ব্যবস্থাপত্র এবং ঔষুধ প্রদান করা হয়। এছাড়াও ২০১৩ থেকে হোমিও চিকিৎসা সেবা প্রদান করা শুরু হয়েছে। যার পুরো অর্থই এ তহবিল থেকে ব্যয় করা হয়।

জরুরী বন্যা তহবিল


আস-সালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ। সিলেট-সুনামগঞ্জ বানভাসি মানুষ চরম দুর্ভোগের শিকার। আসসুন্নাহ ট্রাস্ট বন্যাকবলিত দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। আগামী শুক্রবার রাতে সিলেট- সুনামগঞ্জের উদ্দেশ্য আস সুন্নাহ ট্রাস্টের পক্ষ থেকে একটি কাফেলা জরুরী ত্রাণ পৌঁছানোর উদ্দেশ্য রওনা হবে। ইনশাআল্লাহ।

গ্যালারী

বুক শপ

ইসলামী আকীদা

সম্ভবত আমরা অনুভব করছি যে, ঈমানের জ্ঞান অর্জন করতে আমাদের সচেষ্ট হওয়া উচিত। এ অনুভবের ভিত্তিতেই এ বই লেখা। বাংলার সরলপ্রাণ ভক্তিপ্রবণ মুসলিম সমাজের কেউই ইসলামের মৌলিক বিশ্বাস বা ঈমান সম্পর্কে জানতে অনিচ্ছুক নন। তা সত্ত্বেও এ ব্যাপারে তাদের অনেকের অজ্ঞতা বা জানার কমতির কারণ সম্ভবত এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় বই এর অভাব।...

রাহে বেলায়াত

কুরআন-হাদীসের আলোকে আমরা দেখি যে, বিশুদ্ধ ঈমান ও পরিপূর্ণ তাকওয়া বা মহান আল্লাহর নিষেধকৃত সকল বিষয় বর্জনই তাযকিয়ায়ে নাফ্স বা আত্মশুদ্ধি এবং বেলায়াত বা আল্লাহর নৈকট্য ও প্রেমের পথ। হাদীস শরীফে আল্লাহর বেলায়াত বা নৈকট্যের পথের কর্মকে দুভাগ করা হয়েছে: ফরয ও নফল। ফরয পালনের পাশাপাশি অবিরত নফল ইবাদত...

এহ্ইয়াউস সুনান

এখন এ অবস্থাকে রাসূলুল্লাহ (সা.) ও তাঁর সাহাবীদের অবস্থার সাথে তুলনা করুন। তাঁরা কেউ গানের মাহফিল করেননি, গান শুনে নাচেননি, অজ্ঞান হয়ে পড়েননি। তাহলে কি তাঁরা আল্লাহর প্রেমে অনগ্রসর ছিলেন? এখানেই সুন্নী হৃদয়ের সমস্যা। যখনই কোনো বরেণ্য সাধক বা আলিম সম্পর্কে বলা হয় তিনি ভক্তিমূলক গান গযল শুনে বেহাল হয়েছেন, বা জ্ঞান হারিয়েছেন...