As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 5031

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম । আমার পরিচিত একজন আমারই বন্ধু, সে আগে তেমন নামাজ পড়ত না, পেশাব করে পানি নিত না। সপ্তাহে একদিন শুক্রবার নামাজ পড়ত। এসময় ইসলাম সম্পর্কে বেশি কিছু জ্ঞান ছাড়া কিছু জানত না। সে তখন ১০ম শ্রেণীর ছাত্র। কিন্তু সে সকল প্রকার বড় পাপ থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করত যেমন : শিরক। এভাবে একদিন আমাদের শিক্ষক সবাইকে নিয়ে নামাজ পড়তে চাইলেন। তখন সবাই সম্মতি দেওয়াতে তাকেও দিতে হলো। যেহেতু তার কাপড় পবিত্র ছিল না তাই সে মনে মনে ভেবেছিল সে নামাজ পড়লেও নামাজ হবে না। শুধু নামাজ না পড়ার পাপ হবে। এর পর সে বাসায় ফিরে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চায় ও তার মাকে জানায়। কিন্তু কিছু দিন আগে ইউটিউব থেকে সে জানতে পেরেছে এটা শিরকের অন্তর্ভুক্ত। সে সঙ্গে সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে নিছে। বর্তমানে সে ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে, ইসলাম সম্পর্কে অনেক ঘাটাঘাটি করে ও ইসলাম এর সব কাজ যথাযথ পালনের চেষ্টা করে অর্থাৎ সে অনেক বদলায় গেছে আগের তুলনায়। কিন্তু ইউটিউব থেকে ভিডিও দেখার পর থেকে তার মন খুব খারাপ। সে সব সময় আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছে।

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। আল্লাহ তাকে ইসলামের উপর অটুট রাখুন। মন খারাপের কোন কারণ নেই। আল্লাহ অবশ্যই তাকে ক্ষমা করে দিবেন। তওবা করলে সব গুনাহ আল্লাহ তায়ালা মাফ করে দিবেন।