As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 205

প্রশ্ন

আস-সালামু আলাইকুম। মহিলারা কি বাবা মা বা সজন্ দের কবর জিয়ারাত করতে পারবে? নাবি (স) এর কবর জিয়ারাত করতে পারবে?

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ। অধিকাংশ আলেম ও ফকীহর মত হলো, মহিলাদের জন্য কবর জিয়ারত করার অনুমতি নেই। তবে অনেক আলেম বলেছেন, দুয়েক বার করা জায়েজ আছে। দেখুন, আল-ফিকহিয়্যাতুল ইসলামিয়্যু ওয়া আদিল্লাতুহু, ২/৬৮০; আলমাওসুয়াতুল ফিকহিয়্যাতুল কুয়েতিয়্যাহ; ২৪/৪৪; হাশিয়াতু রদ্দিল মুখতার, ২/৬২৬। যারা বলেন অনুমতি নেই তাদের দলীল নিম্নের হাদীস: حدثنا قتيبة حدثنا أبو عوانة عن عمر بن أبي سلمة عن أبيه عن أبي هريرة : أن رسول الله صلى الله عليه و سلم لعن زوارات القبور অথ: হযরত আবু হুরায়রা রা. থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সা. কবর জিয়ারতকারী মহিলাদের লানত করেছেন। সুনানু তিরমিযী, হাদীস নং ১০৫৬; মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং ৮৪৩৩। । হাদীসটিকে ইমাম তিরমিযী সহীহ বলেছেন, শায়খ শুয়াইব আর নাউত এবং শায়খ আলাবনী হাসান বলেছেন। উক্ত হাদীসের ভিত্তিতে অধিকাংশ আলেম ও ফকীহ বলেন, মহিলাদের জন্য কবর জিয়ারত করা জায়েজ নেই। তবে কোন কোন ফকীহ বৈধতা দিয়েছেন। তাদের দলীল হলো: হযরত আশো রা. এর ঘরে একবার রাসূলুল্লাহ সা. রাত্রে ছিলেন। মধ্যরাতে হঠাৎ তিনি দেখলেন রাসূলুল্লাহ সা. ঘরে নেই, তিনি তাকে কবর স্থানে পেলেন। সেখানে এক পর্যায়ে হযরত আয়েশা রা. রাসূলুল্লাহ সা. কে বললেন, كَيْفَ أَقُولُ لَهُمْ يَا رَسُولَ اللَّهِ قَالَ ্র قُولِى السَّلاَمُ عَلَى أَهْلِ الدِّيَارِ مِنَ الْمُؤْمِنِينَ وَالْمُسْلِمِينَ وَيَرْحَمُ اللَّهُ الْمُسْتَقْدِمِينَ مِنَّا وَالْمُسْتَأْخِرِينَ وَإِنَّا إِنْ شَاءَ اللَّهُ بِكُمْ لَلاَحِقُونَ অর্থ: ইয়া রাসূলুল্লাহ! আমি তাদের (কবরবাসীদের) কি বলব? তখন তিনি বললেন,বল! মূমিন ও মুসলিম কবরবাসীদের উপর আল্লাহর পক্ষ থেকে শান্তি বর্ষিত হোক। আমাদের পরবর্তী এবং পূববর্তীদেও উপর আল্লাহ দয়া করুন। ইনশাআল্লাহ আমরাও তোমাদের সাথে যুক্ত হব। সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ২৩০১। প্রথমে উল্লেখিত হাদীসটি বর্ণনা করার পর এই বিষয়ে ইমাম তিরমিযী বলেন, وقد رأى بعض أهل العلم أن هذا كان قبل أن يرخص النبي صلى الله عليه و سلم في زيارة القبور فلما رخص دخل في رخصته الرجال والنساء وقال بعضهم إنما كرهت زيارة القبور للنساء لقلة صبرهن وكثرة جزعهن অর্থ: একদল আলেম মনে করেন যে, এটা ছিল নবীয়্যূল্লাহ সা. কর্তৃক মানুষেরকে কবর জিয়ারতের অনুমতি দেয়ার পূর্বে। যখন তিনি অনুমতি দিয়েছেন তখন পুরুষ মহিলা উভয়েই এই হুকুমের অন্তুভূক্ত হবে। আরেকদল আলেম বলেন, মহিলাদের জন্য কবর জিয়ারত করা মাকরুহ হবে, কেননা তাদের ধৈর্য্য কম এবং অস্থিরতা বেশী। সুনানু তিরমিযী, ১০৫৬ নং হাদীসের আলোচনা। উল্লেখ্য যে, রাসূলুল্লাহ সা. এর কবর জিয়ারত করা সবার মতে জায়েজ আছে। শেষ কথা: মহিলাদের মন নরম, তাদের ধৈর্য্য কম. তারা অল্পতেই কান্নকাটি শুরু করে দেয় সুতরাং তাদের কবর জিয়ারত না করতে যাওয়াটা নিঃসন্দেহ উত্তম। মালেকী মাজহাবের প্রসিদ্ধ আলিম আল্লামা ইবনে আব্দুল বার বলেন, ولا خلاف في إباحة زيارة القبور للرجال وكراهيتها للنساء অর্থ: পুরুষদের জন্য কবর জিয়ারত বৈধ হওয়ার এবং মহিলাদের জন্য মাকরুহ হওয়ার ব্যপারে কোন মতবিরোধ নেই। দেখুন: আল-ইসতিযকার, ১/১৮৪।