As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 784

প্রশ্ন

শায়েখ আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর তার লেকচার-এ বলেছিলেন যে- রাসুল (স) আমাদেরকে পাঁচটি পাপ থেকে দূরে থাকতে বলেছেন। ১। সমাজে যখন অশ্লিলতা বেরে যাবে, তখন আল্লাহ তাদের কে গজব হিসেবে নতুন রোগ দিবেন। (হাদিস টা আমার মনে নেই, তবে মুল বক্তব্য হয়ত ঠিক আছে। শায়েখ আপনি সম্পূর্ণ হাদিছটি উল্লেখ করলে উপকৃত হব।

উত্তর

পূর্ণ হাদীসটি নিম্নরুপ: – حَدَّثَنَا مَحْمُودُ بْنُ خَالِدٍ الدِّمَشْقِيُّ ، حَدَّثَنَا سُلَيْمَانُ بْنُ عَبْدِ الرَّحْمَنِ أَبُو أَيُّوبَ ، عَنِ ابْنِ أَبِي مَالِكٍ ، عَنْ أَبِيهِ ، عَنْ عَطَاءِ بْنِ أَبِي رَبَاحٍ ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ عُمَرَ ، قَالَ : أَقْبَلَ عَلَيْنَا رَسُولُ اللهِ صَلَّى الله عَليْهِ وسَلَّمَ ، فَقَالَ : يَا مَعْشَرَ الْمُهَاجِرِينَ خَمْسٌ إِذَا ابْتُلِيتُمْ بِهِنَّ ، وَأَعُوذُ بِاللَّهِ أَنْ تُدْرِكُوهُنَّ لَمْ تَظْهَرِ الْفَاحِشَةُ فِي قَوْمٍ قَطُّ ، حَتَّى يُعْلِنُوا بِهَا ، إِلاَّ فَشَا فِيهِمُ الطَّاعُونُ ، وَالأَوْجَاعُ الَّتِي لَمْ تَكُنْ مَضَتْ فِي أَسْلاَفِهِمُ الَّذِينَ مَضَوْا وَلَمْ يَنْقُصُوا الْمِكْيَالَ وَالْمِيزَانَ ، إِلاَّ أُخِذُوا بِالسِّنِينَ ، وَشِدَّةِ الْمَؤُونَةِ ، وَجَوْرِ السُّلْطَانِ عَلَيْهِمْ. وَلَمْ يَمْنَعُوا زَكَاةَ أَمْوَالِهِمْ ، إِلاَّ مُنِعُوا الْقَطْرَ مِنَ السَّمَاءِ ، وَلَوْلاَ الْبَهَائِمُ لَمْ يُمْطَرُوا. وَلَمْ يَنْقُضُوا عَهْدَ اللهِ ، وَعَهْدَ رَسُولِهِ ، إِلاَّ سَلَّطَ اللَّهُ عَلَيْهِمْ عَدُوًّا مِنْ غَيْرِهِمْ ، فَأَخَذُوا بَعْضَ مَا فِي أَيْدِيهِمْ. وَمَا لَمْ تَحْكُمْ أَئِمَّتُهُمْ بِكِتَابِ اللهِ ، وَيَتَخَيَّرُوا مِمَّا أَنْزَلَ اللَّهُ ، إِلاَّ جَعَلَ اللَّهُ بَأْسَهُمْ بَيْنَهُمْ অর্থ: আব্দুল্লাহ ইবনে উমার রা. বলেন, রাসূলুল্লাহ সা. আমাদের মাঝে এসে বললেন, পাঁচটি পাপে যখন তোমরা লিপ্ত হবে (তখন তোমরা আযাবে আক্রান্ত হবে)। আমি এগুলোতে তোমাদের লিপ্ত হওয়া থেকে আল্লাহর কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করছি। ১। মানুষে প্রকাশ্য অশ্লীলতায় (ব্যাভিচারে) লিপ্ত হবে। তখন তাদের মাঝে এমন রোগ প্রকাশ পাবে, যে রোগ সম্পর্কে তাদের পূর্বপুরুষেরা জানত না। ২। মানুষ ওজনে কম দিবে। তখন তারা দূভিক্ষতে আক্রান্ত হবে। অভাব অনটনে আক্রান্ত হবে। ৩। মানুষ যাকাত দিবে না। তখন বৃষ্টি বন্ধ হয়ে যাবে। চতুস্পদ পশু না থাকলে বৃষ্টি একদম বন্ধ হয়ে যেত। ৪। মানুষ আল্লাহ এবং তার রাসূলের সাথে কৃত অঙ্গিকার (বিধর্মীদের সাথে কৃত চুক্তি উদ্দেশ্য) লঙ্ঘন করবে তখন আল্লাহ তায়ালা অন্যদের (ইসলামের শত্রদের) থেকে কোন শত্রুকে শাসক হিসাবে চাপিয়ে দিবেন। আর তারা মুসলিমদের সম্পদ আত্মসাত করবে। ৫। তাদের শাসকরা আল্লাহর কিতাব দ্বারা ফয়সালা করবে না, আল্লাহ যে আইন অবতীর্ণ করেছেন তার দ্বারা বিচার করবে না। তখন আল্লাহ তায়ালা তাদের মাঝে বিপদ-মুসিবত দিবেন। সুনানু ইবনে মাজাহ, হাদীস নং ৪০১৯। শায়খ শুয়াইব আরনাউত এবং শায়খ আলবানী হাদীসটিকে হাসান বলেছেন। আল্লামা বুসিরি রহ. বলেছেন, হাদীসটি আমলযোগ্য।