As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 684

প্রশ্ন

আসছালামু আঁলাইকুম। আমাদের দেশের অনেক আলেমই মহিলাদের জামাআতে সলাত আদায়ে নিরুতসাহিত করেন। আমি যতটুকু জানি বিষয়টা ঠিক নয়। এই প্রথম আমাদের গ্রামে ঈদের জামাআতে মহিলাদেরও সলাত আদায়ের ব্যবস্থা করছি। বিষয়টি যদি খোলাসা করেন? তাহলে ভালো হয়।

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। মহিলাদের মসজিদে জামায়াতে আসা দায়িত্ব নয় বরং বাড়িতে সালাত আদায় করায় তাদের জন্য উত্তম। তবে তাদের জন্য সুযোগ আছে যদি মসজিদে ব্যবস্থা থাকে মহিলাদের সালাতের। হাদীসে রাসূলুল্লা সা. বলেছেন, لاَ تَمْنَعُوا نِسَاءَكُمُ الْمَسَاجِدَ وَبُيُوتُهُنَّ خَيْرٌ لَهُنَّ অর্খ: তোমরা তোমাদের মহিলাদের মসজিদে যেতে বাধা দিও না, তবে তাদের বাড়ি তাদের জন্য উত্তম। সুনানু আবু দাউদ, হাদীস নং ৫৬৭; মুসনাদ আহমাদ, হাদীস নং ৫৪৭১। হাদীসটি সহীহ। শায়খ আলবান ও শায়খ শুয়াইব আরনাউতসহ অন্যান্য মুহাদ্দিসগণ হাদীসটিকে সহীহ বলেছেন।হযরত আয়েশার রা.বলেন, لَوْ أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ -صلى الله عليه وسلم- رَأَى مَا أَحْدَثَ النِّسَاءُ لَمَنَعَهُنَّ الْمَسْجِدَ كَمَا مُنِعَتْ نِسَاءُ بَنِى إِسْرَائِيلَ অর্থ: যদি রাসূলুল্লা সা. মহিলাদের বর্তমান কাজকর্ম দেখতেন তাহলে তাদেরকে মসজিদে যেতে নিষেধ করতেন যেমন ভাবে বনি ইসরাইলের মেয়েদের নিষেধ করা হয়েছিল। সহীহ মুসলিম হাদীস নং ১০২৭; সুনানু আবু দাউদ,হাদীস নং ৫৬৯; সহীহ বুখারী, হাদীস নং ৮৬৯। ভাই ্এর বিপরীতে এখটি হাদীসও নেই যেখানে মহিলাদের জামাতে আসার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাহলে আপনিই বলুন, আপনি উৎসাহিত করবেন না নিরুৎসাাহিত করবেন? তবে আমরা কিছুই করব না। হাদীসে যেমন আছে তেমন করব। আসলে বাধা দেব না তবে বলবো বাড়িতে পড়াই উত্তম। ইদগাহে যেতে সহীহ হাদীসে রাসূলুল্লাহ সা. মহিলাদের উৎসাহ দিয়েছেন। সুতরাং পর্দাসহ ব্যবস্থা থাকলে যেতে পারে।