As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 5829

প্রশ্ন

আস সালামু আলাইকুম। আমি শুনেছি হাদিসে ইশরাক এর নামাজ আদায় এর শর্তে জামাতে নামাজ পরে মসজিদে অবস্থান করার কথা উল্লেখ আছে। ভুল হলে ঠিক করে দিবেন। তাহলে মহিলাদের জন্য ইশরাক এর নামাজের বিধান কি? তারা কি বাড়িতে পরলে একই সওয়াব ও পুরষ্কার পাবেন?

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। দোহার ( অন্য নাম চাশত বা ইশরাক) সালাতের ব্যাপারে আনাস (রা) বলেন, রাসূলুল্লাহসা. বলেছেন: مَنْ صَلَّى الْغَدَاةَ فِي جَمَاعَةٍ ثُمَّ قَعَدَ يَذْكُرُ اللَّهَ حَتَّى تَطْلُعَ الشَّمْسُ ثُمَّ صَلَّى رَكْعَتَيْنِ كَانَتْ لَهُ كَأَجْرِ حَجَّةٍ وَعُمْرَةٍ … تَامَّةٍ تَامَّةٍ تَامَّةٍ যে ব্যক্তি ফজরের সালাত জামাআতে আদায় করে বসে বসে আল্লাহরযিকিরকরবে সূর্যোদয় পর্যন্ত, এরপর দুই রাকআত সালাত আদায় করবে, সে একটি হজ্ব ও একটি ওমরার সাওয়াব অর্জন করবে: পরিপূর্ণ, পরিপূর্ণ, পরিপূর্ণ (হজ্ব ও ওমরা)। হাদীসটি হাসান। তিরমিযী (আবওয়াবুস সালাত, ৫৯-..জলূস ফিল মাসজিদ…) ২/৪৮১, নং ৫৮৬, (ভারতীয় ১/১৩০); আলবানী, সহীহুত তারগীব ১/২৬০।


আবু উমামমাহ ও উতবাহ ইবনু আবদ (রা) বলেন, রাসূলুলুল্লাহ সা.বলেছেন: مَنْ صَلَّى صَلاَةَ الصُّبْحِ فِيْ جَمَاعَةٍ ثُمَّ ثَبَتَ حَتَّى يُسَبِّحُ للهِ سُبْحَةَ الضُّحَى كَانَ لَهُ كَأَجْرِ حَاجٍّ وَمُعْتَمِرٍ تَامًّا لَهُ حَجُّهُ وَعُمْرَتُهُ যে ব্যক্তি ফজরের সালাত জামাতে আদায় করে বসে থাকবে দোহার (চাশ্তের) সালাত আদায় করা পর্যন্ত, সে একটি পূর্ণ হজ্ব ও একটি পূর্ণ ওমরার মতো সাওয়াব পাবে। হাদীসটি হাসান। আলবানী, সহীহুত তারগীব ১/২৬১।


এভাবে বসতে না পারলেও দোহার সালাত পৃথকভাবে আদায়ের জন্য হাদীসে উৎসাহ প্রদান করা হয়েছে। রাসূলুল্লাহ সা.নিজে মাঝে মাঝে দোহার (চাশতের) সালাত আদায় করতেন। যে কোনো মুসলিম, ফজরের জামাতের পরে যিকির করুন বা না করুন, সূর্যোদয়ের পর থেকে দ্বি-প্রহরের মধ্যে দু-চার রাকআত দোহার সালাত আদায় করলেই বিভিন্ন হাদীসে বর্ণিত অশেষ সাওয়াব ও বরকতের আশা করতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে দেখুন, শায়খ ড. আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর রহ. রচিত রাহে বেলায়াত বইটি, পৃষ্ঠা, ৪৯৪-৪৯৮।

মহিলারা বাড়িতে এই সালাত আদায় করতে পারবেন, সওয়াব ও পুরস্কার পাবেন।