As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 5473

প্রশ্ন

আস-সালামু আলাইকুম, আমি আমার সাংসারিক জীবন নিয়ে খুব অসহায় অবস্থায় রয়েছি। আমার বিয়ের ১ বছর ২ মাস হয়েছে। প্রথম দিকে আমার স্বামী আমাকে প্রচন্ড রকমের ভালোবাসত। আমার শাশুড়ির সাথে আমার কিছু বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য হয়। আমি একসময় আমার স্বামীকে বলেছি যে, আমার বান্ধবীর জামাইরা তাদেরকে কতো কি কিনে দেয়, তুমি কিনে দেওনা কেন। আমার আব্বু, আম্মুর সাথে আমার স্বামীর কিছু বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। এরপর আমার স্বামী আমাকে বলেছে যে, তাকে আমি সন্মান করিনি, আমার আব্বু, আম্মু তাকে (আমার স্বামীকে) মর্যাদা দেয়নি। আমার ওপর অভিমান করে, আমার স্বামী ৫ মাস ধরে, আমার সাথে সহবাস করে না। আমার বাবার বাসায় যায় না। ২ মাস ধরে আমরা দুইজন দুইটা আলাদা রুমে থাকি। আমার স্বামী আমার সাথে কথাও বলতে চায় না। আমার প্রতিও কোন টান অনুভব করে না। আমাকে আমার স্বামী বলেছে যে, আমার আত্নসন্মান নাই, যার কারনে আমি তার বাসায় পড়ে আছি। আমি আমার স্বামীকে প্রচন্ড ভালোবাসি, এ অবস্থায় আমার কি করা উচিত। আমি অনেক কষ্ট পাচ্ছি। আমি আল্লাহর কাছে তওবা করেছি, আমার ভুলগুলোর জন্য। আমার স্বামীর কাছে ক্ষমা চেয়েছি, কিন্তু সে আমাকে মাফ করতে পারেনি। আমি কিভাবে এসব সমস্যার সমাধান করব। আমার স্বামী আমাকে তার কোন কাজ ও করতে দেয় না। আমাকে জানাবেন দয়া করে।

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। আপনি কিছু ভুল করে ফেলেছেন যার কারণে এমন সমস্যা হয়েছে। শাশুড়ীর সাথে ঝামেলা একটা বড় সমস্যা। আত্মমর্যাদাবোধ সম্পন্ন কোন পুরুষ তার মায়ের সাথে বৌ ঝামেলা করবে এটা মেনে নেবে না। শাশুড়ির ভুল হতে পারে, তবে কিছুতেই তার সাথে ঝামেলাতে জড়ানো যাবে না। দ্বিতীয়ত কার বর কাকে কী দিল সেটা বলাও ঠিক হয় নি। আর্থিক ও রুচির সমন্বয়ে যতটুকু তার পক্ষে দেওয়া সম্ভব সে দিবে। নিত্য প্রয়োজনীয় কিছু প্রয়োজন হলে সেটা আপনি জোর দিয়ে চাইতে পারেন। কিন্তু সাজ-সজ্জার জন্য স্বামীকে চাপ দেয়া খুবই খারাপ কাজ। যাই হোক, আপনি ভুল করেছেন, ক্ষমা চেয়েছেন, এখন তার উচিৎ ক্ষমা করে দেয়া এবং স্বাভাবিকভাবে সংসার শুরু করা। আপনি স্বামীর বাড়িতেই থাকুন, তার কাছে ক্ষমা চাইতে থাকুন এবং সে তার কাজ করতে না দিতে চাইলেও আপনি তার কাজ করার চেষ্টা করুন, তার কাছাকাছি থাকার চেষ্টা করুন। আপনার স্বামী যাদেরকে মান্য করে তাদের মাধ্যমেও সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করুন। আমরা আল্লাহর কাছে দুআ করি আল্লাহ আপনাদের সমস্যা দূর করে দিন।