As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 5156

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম। আমার পরিবার নানা সমস্যার ও অসুস্থতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। তো কেউ কেউ বলছে আমাদের পরিবারে ক্ষতি করতে কেউ জ্বীন চালান করেছে/ শিকল বন্দি করেছে। ফলে একটার পর একটা সমস্যা আসতে থাকবে, সুস্থ ও হবেন না।বেশ কিছু জায়গায় একই টাইপ কথা বলেছে। এটার জন্য তাবিজ, তেল, পানি, বালি ইত্যাদি দিতে চায়। কেউ কেউ ঘরে এসে কিসব জাদু কাটতে চায়। এমন অবস্থায় আমাদের কি করনীয়? আর কেউ সত্যি সত্যি জাদু/ জ্বীন চালান করে থাকলে কি করলে আমরা মুক্ত থাকবো। আমাদের সমস্যা গুলো নিম্ন টাইপ: ১. মা অসুস্থ, ডিমেনশিয়া রোগী, কোন কিছু মনে রাখতে পারেন। নিজের কাজ ও নিজে করতে পারেনা। ২. বাবা অসুস্থ, স্টোক করেছে। কবে করেছে জানিনা। অনেক আগে একবার আব্বুর ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে একটা পুতুল পাওয়া গিয়েছিল যেটা কালো জাদুর মতো শরীরে বিভিন্ন জিনিস ঢুকানো ছিল। যেটা নষ্ট করা হয়েছিল। তবে আব্বু সুস্থই ছিল এতো বছর। কিন্তু এখন আব্বুর অবস্থা অনেক খারাপ ভয় পায়। বের হতে চায়না বাসা থেকে। ব্যবসা করতো সেটাও আস্তে আস্তে শেষ হয়ে গেছে। ৩. আমি পড়াশোনা শেষ করেছি। কয়েক জায়গায় জব ও করেছি। কিন্ত কোন জকয়গায় স্থায়ী হতে পারিনি। এখন ব্যবসা করছি। কিন্তু ব্যবসায়ে তেমন উন্নতি নেই। । যেই লাভ হয় সেটা খুবই নগণ্য। হিসেবে লস প্রজেক্ট। ৪. আমার বিয়ে হয়েছে ২.৫ বছরের মতো। সংসারে শান্তি পাইনি। অশান্তি লেগেই থাকে। ৫. আমার প্রথম সন্তান পেটে আসতে না আসতেই থাকেনি। দ্বিতীয় সন্তান এর বয়স ১১ মাস প্লাস চলছে। ওর ৬ মাস পর্যন্ত কোন সমস্যা ছিল না। এর পর থেকে জ্বর, ডায়রিয়া লেগেই আছে। ওর হার্টে ও অনেক সমস্যা ধরা পড়েছে। যেটা সহজে ঠিক হবার না। ৬. আমার একমাত্র বোন। মাস আল্লাহ দেখতে সুন্দর। পড়াশোনা শেষ হবার পর থেকেই বিয়ের চেষ্টা করছি কিন্তু কোন কিছুই হচ্ছে না। অনেকেই আগায় আবার পিছিয়ে যায়। । ওর চাকরি ও হচ্ছে না। ৭. অর্থনৈতিক ভাবেও কোন উন্নতি করতে পারছি না আমরা। যদিও কিছু জায়গা থেকে টাকা পাই ভালোই তবে সেটা ধরে রাখতে পারছিনা। ইত্যাদি সমস্যায় জর্জরিত আমরা। । কি করবো, অফ কেউ যদি সত্যিই কিছু করে থাকে কি করলে মুক্তি পাব জানাবেন প্লিজ।

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। কুরআনে আল্লাহ বলেছেন,أَحَسِبَ النَّاسُ أَنْ يُتْرَكُوا أَنْ يَقُولُوا آمَنَّا وَهُمْ لَا يُفْتَنُونَ (2) وَلَقَدْ فَتَنَّا الَّذِينَ مِنْ قَبْلِهِمْ فَلَيَعْلَمَنَّ اللَّهُ الَّذِينَ صَدَقُوا وَلَيَعْلَمَنَّ الْكَاذِبِينَমানুষ কি মনে করে যে, তারা বলবে, আমরা ঈমান এনেছি আর তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হবে, পরীক্ষা করা হবে না? অবশ্যই আমি তাদের পূর্বের লোকদেরকে পরীক্ষা করেছি, যাতে করে আল্লাহ তায়ালা সত্যবাদী ও মিথ্যাবাদীদের চিনে নিতে পারেন। সূরা আনকাবুত, আয়াত ১-২। মনে হচ্ছে আল্লাহ তায়ালা আপনাদেরকে বড় পরীক্ষার মধ্যে ফেলেছেন। এখন কাজ হলো ধৈর্যের সাথে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া। আল্লাহর কাছে সর্বদা দুআ করবেন যেন আল্লাহ তায়ালা সকল সমস্যা দূর করে দেন। আমরাও আপনাদের জন্য সেই দুআ করি। আপনি যা লিখেছেন তাতে যাদুর কোন সমস্যা আছে বলে মনে হয় না।তারপরও যদি আপনর মনে হয় তাহলে রাহে বেলায়াত বইটি সংগ্রহ করবেন, যাদু থেকে বেঁচে থাকার প্রয়োজনীয় দুআ সেখানে পাবেন। তাছাড়া দুষ্টু মানুষ ও জ্বীন থেকে বেঁচে থাকার যে সকল দুআ সকল সন্ধ্যা পড়ার কথা হাদীসে আছে সেগুলো সর্বদা পড়বেন। সকল দুআ রাহে বেলায়াত বইয়ে আছে।