As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 5118

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম। অনেকে বলে মানুষ অথবা কবরে সিজদা করা জায়েজ। দলিল হিসাবে তারা বলে মানুষ সৃষ্টির শুরুতে সকল ফেরেস্ততা আদম(আ:) কে সিজদা করছিল। যেহেতুু আদম(আ:) মানুষ। সেহেতু মানুষকে সিজদা করা যাবেে। এটার জবাব দিব কিভাবে?

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। মুহাম্মাদ সা. উপর যে শরীয়াহ হুকুম আহকাম এসেছে সেই অনুযায়ী কোন মানুষ কোন মানুষকে কিংবা অন্য কোন কিছুকে সাজদা করতে পারবে না। আল্লাহ বলেন, فَاسْجُدُوا لِلَّهِ وَاعْبُدُوا সুতরাং তোমরা আল্লাহকে সিজদা কর এবং ইবাদাত কর। (সূরা নাজম, আয়াত ৬২)। রাসূলুল্লাহ সা. বলেছেন, لَا يَصْلُحُ لِبَشَرٍ أَنْ يَسْجُدَ لِبَشَرٍ ، وَلَوْ صَلَحَ لِبَشَرٍ أَنْ يَسْجُدَ لِبَشَرٍ ، لَأَمَرْتُ الْمَرْأَةَ أَنْ تَسْجُدَ لِزَوْجِهَا، مِنْ عِظَمِ حَقِّهِ عَلَيْهَا ) কোন মানুষের জন্য জায়েজ নেই কোন মানুষকে সাজদা করা, যদি কোন মানুষের জন্য কোন মানুষকে সাজদা করা জায়েজ হতো, তাহলে আমি মহিলাদরকে আদেশ করতাম তার স্বামীকে সাজদা করতে। কারণে স্ত্রীর উপর স্বামীর হক ব্যাপক। মুসনাদু আহমাদ, হাদীস নং ১২৬১৪। হাদীসটি সহীহ। পৃথীবের সকল ইসলামী গবেষক একমত যে, আল্লাহ ছাড়া কাউকে সাজদা দেওয়া জায়েজ নেই। আদমের সাজদা দেওয়ার বিষয়ে কুরআনে যা এসেছে তা শুধু সেই সময়ের জন্য, যাদেরকে আদেশ দেওয়া হয়েছিলো তাদের জন্য জায়েজ ছিলো। অন্যদের জন্য আল্লাহ বাদে কাউকে সাজদা দেয়া সম্পূর্ণ হারাম।