As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 5113

প্রশ্ন

আমি (বয়স ২২) বড় ছেলের বউ। ৬ বছর বিয়ের বয়স। (এর আগে আমার বিয়ে হইছিল,বিয়ে করে ওই ছেলে চলে গেছিল) বিয়ের সময় ১৫ লাখ টাকা নিছে। আমার হাসবেন্ড(বয়স ৩১) বিয়ের আগের থেকে চাকরি করে। আমাদের বিয়ের ১ বছর পর আমি কন্সিভ করি। সেই বাচ্চা টা আমার শাশুড়ী, ননাস আমার জামাইকে উলটা পালটা(আরও উপরের লেভেল এর চাকরি করার আশা দেখাইয়া) বুঝাইয়া নষ্ট করছে। আমার শাশুড়ী, ননাস সব সময় আমাকে বলতো আমি যেন বাচ্চা হওয়া না ফেলি। এখন আমার হাসবেন্ড আগের চাকরির এক ধাপ উপরে। এর মধ্যে আমার দেবর ৫ বছরের বাচ্চা র মা কে ভাগাইয়া নিয়ে আসে। সাড়ে ৪ বছর পর আমাকে উঠাইয়া আনে। আমার দেবরের এর বউকে আমার আগে বাড়ি উঠাই। দেবর(আমি আর দেবর সম বয়সি) বিয়ে করছে আড়াই বছর হইছে। ইন্টারে ৩ বার ফেল করছে। এখনও কোন কাজ করে না। আমার হাসবেন্ড ওর বউ এর খরচ দেয়। আমার হাসবেন্ড এর টাকা দিয়ে আমার শাশুড়ী আর দেবরের সংসার চলে। আমার শুশুড়ের অনেক টাকা আছে। কিছু দেই না। আমার ভরনপোষণ দেড় বছর ধরে দেয়। এইতোদিন দেই নাই। কিন্তু দেবর এর বউকে আমার হাসবেন্ড চালাত। এখনো চালাই। ১ম বাচ্চা ফালানোর জন্য আমার ২ বার মিস্কেরস হয়। এইটা আমার ননাস শুনে বলে ভাল হইছে মরছে আরও মরুক। আমার শাশুড়ী কয়েকদিন আগে আমাকে বলে আমাকে বাচ্চা নিতে দিবে না। তার ছোট ছেলের বউ বাচ্চা নিবে। (আমার জা এর বাড়ির থেকে কোন টাকা পয়সা আনা হয় নাই কিছু না। বরং আমার হাসবেন্ড এর টাকা দেই আর আমাদের বাড়িতে এসে থাকে দেবরের শুশুড় বাড়ির লোক)। আমার হাসবেন্ড এর বর্তমান চাকরি আমার বাবা টাকা দিয়ে। দেবর যা করবে সেই টাকা আমার হাসবেন্ড এর দিতে হবে। (১০/২০ হাজারের চাকরি করবে না, ৫০ হাজার টাকা এক লাফে কামাবে) ৩ বাচ্চা হারিয়ে এবং আমার সাথে অনেক অত্যাচার করছে (যা বলে শেষ করা যাবে না)।আমার আর সহ্য হচ্ছে না যে আমার হাসবেন্ড ওদের এখনও খাওয়াই। (দেবর এর বউ এর সাথে আমার ননাসের জামাইয়ের সম্পর্ক রয়েছে এইটা আমার হাসবেন্ড এর মামাতো বোন এর কাছ থেকে জেনেছি। এইটাও আমার হাসবেন্ড কে বলছি। সে চুপ। আমার বাচ্চা কথা আর আমার সাথে কি কি করছে মনে আসলে খুব খারাপ লাগে। কান্না করি একা একা। হাসবেন্ড কে কিছু বললে আমাকে মারে। বলে সারাদিন পর এসে তোমার ঝগড়া শুনবো নাকি। তার মা, বোন,ভাই, ভাই বউ এর বেপারে কিছু বললে আমাকে মারে। তাদের সম্পর্কে কিছু না বললে কিছু বলে না। কিন্তু আতারা আমাকে নানান ভাবে খুচাই। সরাসরি বলতে পারে না দেখে মানুষে মাধ্যমে বলে। মাঝের মধ্যে মনে হয় সুইসাইড করি। (৩ মাস ধরে আমাকে জালাতে পারে না এইট দিন ১/২ মিনিট কথা বলছি, এখন ২০ দিন ধরে কথা বলি না আমার হাসবেন্ড শুধু কথা বলে, তারাও আমাকে কল দেয় না আমিও দেয় না। ) এইগুলা কি আমার সাথে অন্যায় না?

উত্তর

জ্বী, আপনি যা লিখেছেন সেটা সত্য হলে আপনার উপর মহা অন্যায় করা হচ্ছে। আপনি পারিবারিকভাবে সমাধানের চেষ্ট করুন এবং আল্লাহর কাছে দুআ করুন। এক সময় সব সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে। সুসাইড কোন সমাধান নয়, চরম অপরাধ, অনেক বড় পাপ। সুতরাং ধৈর্যের সাথে অপেক্ষা করুন, দুআ করুন। আমরাও আপনার জন্য দুআ করি, আল্লাহ আপনার সমস্যা দূর করে দিন।