As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 448

প্রশ্ন

আস-সওয়ালাম আলাইকুম। ১.কোন স্বামী যদি তালাক না দেয় কিন্তু তার স্ত্রী যদি ডিভোর্স দেয় তারা কি পরবর্তীতে সংসার করতে পারবে? ২.কোন মেয়ের বয়স যদি ২৭ বছর হয়, সে যদি কোন ছেলেকে বিয়ে করে পরিবারকে না জানিয়ে অথবা পরিবারের লোকেরা এখন জানলে মানবে না কিন্তু পরে জানলে মেনে নিবে — যেহেতু বিয়ের আগে প্রেম তরা পাপ তাইজন্য বিয়ে করবে — তাহলে কি তাদের বিয়ে বৈধ হবে? পরবর্তীতে পরিবারের লোকদের সামনে কি তাদের আবার বিয়ে করতে হবে? ছেলে-মেয়ে ২ জনেই নামাজ পড়ে, মেয়েটি পর্দা করে এবং ইসলামী আইন মানতে চায় — ঐ মেয়ের ইবাদত কী আল্লাহ কবুল করবেন?

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। ১। স্বামী স্ত্রীকে তালাক (ডিভোর্স) নেয়ার অধিকার দিলে স্বামী তালাক না দিলেও স্ত্রী নিজেকে নিজে তালাক নিতে পারেন। এক্ষেত্রে স্ত্রীর তালাকই চূড়ান্ত বলে গণ্য। তবে আপনি স্থানীয় কোন আলেমের সাথে এই বিষয়ে কথা বলুন। তিনি বিস্তারিত শুনে সঠিক সিদ্ধান্ত দিতে পারবেন।আপনি যতটুকু লিখেছেন শুধু এতটুকুতে কোন ফয়সালা দেয়া সম্ভব নয়। ২। পরিবারকে না জানিয়ে বিয়ে করা হাদীসে নিষেধ করা হয়েছে। আর এভাবে বিয়ে করলে পরবর্তীতে বিভিন্ন জটিলাত সৃষ্টি হয়। তাই তাদের জানিয়েই বিয়ে করা উচিত। তবে একান্ত বাধ্য হয়ে এমন করলে আশা করা যায় বিয়ে হয়ে যাবে এবং তার ইবদাত আল্লাহর নিকট কবুল হবে। বিস্তারিত জানতে আমাদের দেয়া ৪১ নং প্রশ্নের উত্তর দেখুন।