As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 381

প্রশ্ন

সালাম নিবেন,শায়েখ,আমার একটি প্রশ্ন দয়া করে উত্তর দিবেন-ওয়াহদাতুল উজুত এর ব্যপারে যার আকিদা আল্লাহ্ সবজায়গায় বিরাজমান, আল্লাহ নিরাকার, তার পিছনে নামাজ পড়া যাবে কি না?

উত্তর

সুস্পষ্ট ও র্দ্ব্যথহীন কুফর-শরিক পাওয়া গলেে তার পছিনে সালাত আদায় করা যাবে না। ওয়াহদাতুর উজুত ন:িসন্দহে কুফরী আকীদা। অনকেে না বুঝে এমন বশ্বিাস করনে। তাই এমন ব্যক্তকিে কাফরি বলা মুশকলি।কোন ব্যক্তরি মধ্যে সুস্পষ্ট ও র্দ্ব্যথহীন কুফর-শরিক না পাওয়া র্পযন্ত কোনো অজুহাতে জামাআত বা জুমুআ ত্যাগ করা যাবে না। ওয়াহদাতুল উজুত ও আল্লাহ সর্বত্র বরিাজমান দুটি আকীিদা এক নয়। আমাদরে দশেে অনকেইে মনে করনে আল্লাহ র্সত্র বরিাজমান। আপনি যদি তাকে প্রশ্ন করেন যে, তিনি কি সাপ, ব্যাং বা মাছরি মাথার মধ্যে বা বাথরুমরে মধ্যওে বরিাজমান তবে তনিি তা অস্বীকার করবনে, বরং বলবনে তার জ্ঞান বা ক্ষমতা সর্বত্র বরিাজমান। এরূপ ব্যক্তরি আকীদা ভুল তবে তনিি মুশরকি বা কাফরি নন। মহান আল্লাহ বলনে:وَهُوَ اللَّهُ فِي السَّمَاوَاتِ وَفِي الأَرْضِ তনিইি আল্লাহ আসমান সমূহরে মধ্যে এবং পৃথবিীতে (সূরা আনআম-৩)। সাধারণত এ আয়াতরে ভুল র্অ বা ব্যাখ্যা এক্ষত্রেে ব্যবহার করা হয়। আর কুরআন বা হাদীসরে ব্যাখ্যার ভুল জনতি আকীদার কারণে মানুষকে বভ্রিান্ত বলা যায়, কন্তিু কাফরি বলা যায় না। আপনি যদি অন্য কোন ভাল ইমামের পিছনে সালাত আদায়ের সুযোগ পান তাহলে ভাল, নইলে এরুপ পাপী ইমামের পিছনেই সালাত আদায় করতে হবে। নেককার ইমামের পিছনে সালাত আদায় করার চেষ্টা করতে হবে। প্রসদ্ধি কালামবদি ইমাম আবুল হাসান আশয়ারী র. (৩২৪হি.) বলনে, ومن ديننا أن نصلي الجمعة والأعياد وسائر الصلوات والجماعات خلف كل بر وفاجر كما روى أن عبد الله بن عمر رضى الله عنهم كان يصلي خلف الحجاج র্অথ: আর আমাদের দীনের অন্যতম দিক যে, আমরা জুমুয়ার সালাত, ঈদগুলো এবং অন্যান্য সকল সালাত এবং জামাআত নেককার ও বদকারের পিছনে আদায় করি। যেমনিভাবে বর্ণি ত আছে, আব্দুল্লাহ ইবনে উমার রা. হাজ্জাজ ইবনে ইউসুফরে পছিনে সালাত আদায় করতনে (মুসান্নফিে ইবনে আবী শায়বা হাদীস নং ১৪১৭৫)। আল-ইবানাহ আন উসূলদি দয়িানাহ, ১/২০। দলীলসহ বস্তিারতি জানতে পড়ুন ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর স্যার রচতি আল-ফকিহুল আকবার পৃষ্ঠা ৩৩৭-৩৭৯ এবং রাহে বলোয়াত পৃষ্ঠা ৫৬৩-৫৬৮।