As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 314

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম, আমার প্রশ্নটি অনেক বড় কিন্ত দয়া করে আমাকে তারাতারি উত্তর দিলে ভাল হয় কারন এ নিয়ে আমার পরিবারে অনেক সমস্যা হচ্ছে,আমার বোন তার বয়স ১৮ সে তার মা, বাবা, ভাই বা মুরব্বি কাউকে না জানিয়ে কাজি অফিসে একটি ছেলেকে বিয়ে করে যে কিনা কোন ভাবেই আমার বোনের সাথে কুফু হয়না,মেয়ের বাবা ঘটনা জানার পর অনেক কান্নাকাটি করে এবং বকা দেয়,বাবার কান্না আর জোরাজুরিতে মেয়েটি ছেলেটি তে তিন তালাক মুখে দেয় এবং কাজির কাছে গিয়ে লিখিতও কাগজে তালাক দেয়,পরবর্তীতে ছেলেকে এনে ছেলের মায়ের সামনে তালাকের জন্য জোর করা হয় এবং ছেলেটি লিখিতভাবে তিন তালাকে বায়েন দিয়ে সাক্ষর করে এবং তার মাও সাক্ষি হিসেবে সাক্ষর করে। এখন এরা ২ জন কি কোন ভাবে ২ জনের জন্য বৈধ করা যাবে?

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। প্রশ্ন থেকে বুঝা যায় যে, তাদেরকে এভাবে বাধ্য করা হয়নি যে, তালাক না দিলে তাদের হত্যা করা হবে কিংবা শারীরিক কোন ক্ষতি করা হবে। বরং পিতা-মাতার জোর অনুরোধে ছেলে -মেয়ে একে অপরকে তালাক দিয়েছে। সুতারাং তাদের দুজনকে একে অপরের জন্য বৈধ করার কোন সুযোগ নেই। ঐ মেয়ের যদি অন্য কোথাও বিয়ে হয় আর ঐ স্বামী যদি তাকে তালাক দেয় কিংবা ঐ স্বামী যদি মারা যায় তাহেল তখন আগের স্বামীর সাথে তার বিবাহ হালাল হবে। এছাড়া দ্বিতীয় কেনি পথ নেই। তালাক একটি স্পর্শকাতর বিষয়, সুতরাং ভেবে-চিন্তে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তালাকের বিষয়ে মাসলাগুলোর ব্যাপারেও সাধারণ ধারণা থাকা দরকার। এক তালাকেই তালাক হয়ে যায়, তালাকের জন্য তিন তালাকের প্রয়োজন হয় না। আর এক তালাক, দুই তালাকের ক্ষেত্রে পুনরায় ফিরিয়ে নেয়া যায়। তিন তালাকের ক্ষেত্রে এটা সম্ভব নয়।