As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 1117

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম, ভাই সায়খ নাসীরুদ্দিন আলবানী সম্পর্কে কিছু কথা পড়লাম, উক্ত ব্যাপারটা মিথ্যা হলে বিস্তারিত যুক্তি ও দলিল সহ জানাবেন দয়াকরে, তাহলে খুবই উপকার হবে আমার। *** নাসীরুদ্দিন আলবানী ইমাম বোখারী (রহঃ) সম্পর্কে মন্তব্য করেছেন যে ইমাম বুখারি নাকি একজন অমুসলিম। ইমাম বোখারী (রহঃ) বোখারী শরীফের কিতাবুত তাফসীর এ সূরা কাসাস এর ৮৮ নং আয়াতের যে ব্যাখ্যা করেছেন, সে সম্পর্কে নাসীরুদ্দিন আলবানী লিখেছে, এ ধরণের ব্যাখ্যা কোন মুমিন- মুসলমান দিতে পারে না। তিনি বলেন, এ ধরণের ব্যাখ্যা মূলতঃ কুফরী মতবাদ তাতীলের অন্তর্ভূক্ত। [ফাতাওয়াশ শায়েখ আলবানী, পৃষ্ঠা-৫২৩, মাকতাবাতুত তুরাছিল ইসলামী, প্রথম প্রকাশ ১৯৯৪ খ্রি.] তিনি নাকি এরকম আরও অনেক বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন বিভিন্ন সহিহ আলেম গনের ব্যাপারে। এই ব্যাপারটা আমাকে বিভ্রান্তিতে ফেলেছে । অপেক্ষায় থাকলাম আপনার উত্তরের । নামঃ রানা খান, ঠিকানাঃ ১১০/৩ দক্ষিন বাড্ডা, ঢাকা।

উত্তর

ওয়া আলা্কুমুস সালাম। ভাই, আমি জানি না শায়খ আলবানী রাহ. ইমাম বুখারীর রাহ. ব্যাপারে এমন বলেছেন কি না। তবে তিনি যদি বলেও থাকেন এ ধরণের ব্যাখ্যা কোন মুমিন- মুসলমান দিতে পারে না। তিনি বলেন, এ ধরণের ব্যাখ্যা মূলতঃ কুফরী মতবাদ তাতীলের অন্তর্ভূক্ত। তবুও তাঁর এই কথা দ্বারা কিছুতেই এই অর্থ নেয়া যাবে না যে তিনি বলেছেন, ইমাম বুখারী একজন অমুসলিম। যদি ধরে নিই ইমাম বুখারী এমন ব্যাখ্যঅ করেছেন তাহলে তা ভুল। মানুষ ভুল করে তিনিও ভুল করেছেন। তার ব্যাখ্যা কুফুরী ব্যাখ্যা হতে পারে, তিনি ভুল করে এটা করেছেন। তাই বলে ইমাম বুখারী অমুসলিম হয়ে গেল বিষয়টি এরকম মনে করার কারণ নেই। অনেক মানুষই তো কুফুরীমূলক কথা বলে, শিরকপূর্ণ কাজ করে তাই বলে কি তাদের কাফের বা মুশরিক বলা যায়। যায় না। শায়খ আলাবনী মনে করছেন তার কাজটি কুফুরী তাই তিনি এমন বলেছেন। তার এই বক্তব্য থেকে এই কথা বের করা যে, তিনি ইমাম বুখারীকে অমুসলিম বলেছেন তাহলে এটা তার উপর জুলুম হবে। আর এটা বাস্তবসম্মতও নয়। তিনি ইমাম বুখারী রহ. কিতাব থেকে হাদীস নিয়ে বিভিন্ন মাসআলায় দলীল দিয়েছেন। তিনি যদি অমুসলিম কনে করতেন তাহলে কি তাঁর কিতাবের হাদীস দিয়ে দলীল দিতেন? তবে তার এই কথা (যদি তিনি বলে থাকেন) এ ধরণের ব্যাখ্যা কোন মুমিন- মুসলমান দিতে পারে না। তিনি বলেন, এ ধরণের ব্যাখ্যা মূলতঃ কুফরী মতবাদ তাতীলের অন্তর্ভূক্ত। এটা সঠিক কিন সেটা ভিন্ন বিষয়। আল্লাহ আমাদের সকলকে ক্ষমা করুন।