As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 5541

প্রশ্ন

আস-সালামু আলাইকুম। আমি একজনকে ১ লক্ষ টাকা দিয়েছি গরু কিনে ব্যবসা করার জন্য। সে ১ লক্ষ টাকায় ৩টি গরু কিনেছে। তার সাতে চুক্তি করেছি যে, সে ইদউল আযহা পর্যন্ত (৪/৫ মাস) গরুগুলো লালনপালন করবে এবং বিক্রি করবে। এতে যে লাভ হবে তার তিন ভাগের এক ভাগ আমি এবং দুই ভাগ সে নিবে। আবার লোকসান হলেও সে তিন ভাগের দুই ভাগ এবং আমি এক ভাগ বহন করবো। এরকম চুক্তিতে কি ব্যাবসা করা জায়েজ হবে?

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। এই বিষয়ে শায়খুল ইসলাম ইবনে তাইমিয়া রহ. বলেন, وَلَوْ دَفَعَ دَابَّتَهُ أَوْ نَخْلَةً إلَى مَنْ يَقُومُ بِهِ وَلَهُ جُزْءٌ مِنْ ثَمَانِيَةٍ صَحَّ، وَهُوَ رِوَايَةٌ عَنْ أَحْمَدَ অর্থ:যদি কোন ব্যক্তি কাউকে পশু কিংবা গাছ লালন-পালন বা দেখা-শোনার উদ্দেশ্যে দেয় আর তার জন্য তার (পশুর বা ফলের) একটি অংশ নির্ধারণ করা হয় তাহলে সহীহ হবে। এটা ইমাম অহমাদ থেকে বর্ণিত। আলফাতাওয়া আলকুবরা ৫/৪০৩ হানাফী মাজহাবে জায়েজ নেই। তবে হাকীমুল উম্মত আশরাফ আলী থানবী রহঃ বলেছেন-এ পদ্ধতিটি হাম্বলী মাযহাবে জায়েজ। তাই কোন এলাকায় যদি এটি ব্যাপক প্রচলন হয়, আর এ ছাড়া আর কোন পদ্ধতি সহজ না হয়, তাহলে উক্ত পদ্ধতিটি হাম্বলী মাযহাব অনুযায়ী আমাদের মাযহাবেও জায়েজ হিসেবে করা যাবে। {ইমদাদুল ফাতওয়া-৩/৩৪২-৩৪৩} সুতরাং সর্বোত্তম পন্থা হলো আপনি গরু কিনে দিবেন, গরুর খাবার কিনে দিবেন আর গরু পালার জন্য পারিশ্রমিক নির্ধারণ করে দিবেন। লাভ-লস সব আপনার হবে। সে তার পারিশ্রমিক পাবে।