As-Sunnah Trust

প্রশ্নোত্তর

ক্যাটাগরি

প্রশ্নোত্তর 8531

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম, আমাদের স্থানীয় মসজিদে জুম্মা খুতবাতে মসজিদে এর খাদেম টাকা তুলে থাকেন খুতবা চলা কালে। আমি তাকে প্রশ্ন করি যে হাদিসে এসেছে খুতবার সময় পাশের জন কথা বললে তাকে চুপ থাকো এই কথা বলা জায়েজ নেই। তাহলে আপনারা টাকা তুলেন তা কি জায়েজ হচ্ছে? প্রতি উওরে তিনি বলেন যে, খুদবার ২টি অংশ ইমাম যখন বসে আবার দাঁড়িয়ে খুতবা শুরু করেন ঐ অংশটি হলো দোয়ার অংশ তখন হাটা চলা করা যায়। সঠিক মাসালা জানালে উপকৃত হবো। 

উত্তর

ওয়া আলাইকুমুস সালাম। নীচের হাদীসদুটি লক্ষ্য করুন।

أن أبا هريرة أخبره أن رسول الله صلى الله عليه و سلم قال إذا قلت لصاحبك يوم الجمعة أنصت والإمام يخطب فقد لغوتঅনুবাদ-হযরত আবু হুরায়রা রাঃ বলেন-রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেন-যখন তুমি তোমার পাশের জনকে জুমআর দিন বল-চুপ থাক এমতাবস্থায় যে, ইমাম সাহেব খুতবা দিচ্ছে, তাহলে তুমি অযথা কাজ করলে। সহীহ বুখারী, হাদীস নং-৮৯২।

عن أبي الدرداء قال : جلس رسول الله صلى الله عليه و سلم يوما على المنبر فخطب الناس وتلا آية والى جنبي أبي بن كعب فقلت له يا أبي متى أنزلت هذه الآية قال فأبى أن يكلمنى ثم سألته فأبى أن يكلمنى حتى نزل رسول الله صلى الله عليه و سلم فقال لي أبي مالك من جمعتك إلا ما لغيت فلما انصرف رسول الله صلى الله عليه و سلم جئته فأخبرته فقلت أي رسول الله انك تلوت آية وإلى جنبي أبي بن كعب فسألته متى أنزلت هذه الآية فأبى أن يكلمنى حتى إذا نزلت زعم أبى أنه ليس لي من جمعتي إلا ما لغيت فقال صدق أبي فإذا سمعت أمامك يتكلم فأنصت حتى يفرغ 

আবুদ দারদা (রাঃ) বলেন: নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মিম্বারে বসে মানুষের উদ্দেশ্যে খোতবা দিচ্ছিলেন। তিনি একটি আয়াত তেলাওয়াত করলেন। আমার পাশে ছিল উবাই ইবনে কাব। আমি তাঁকে বললাম: উবাই; এ আয়াতটি কখন নাযিল হয়েছে? তিনি আমার সাথে কোন সাড়া দিলেন না। আমি এরপরেও তাঁকে জিজ্ঞেস করলাম। তারপরেও তিনি কোন সাড়া দিলেন না। এক পর্যায়ে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন মিম্বার থেকে নামলেন তখন উবাই আমাকে বললেন: তুমি যে অনর্থক কথা বলেছ সেটা ছাড়া তুমি জুমার কোন সওয়াব পাবে না। অতঃপর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন নামায শেষ করলেন তখন আমি তাঁর কাছে এসে বিষয়টি জানালাম: তখন তিনি বললেন, উবাই ঠিক বলেছে। যখন ইমাম কথা বলা শুরু করে তখন ইমাম কথা শেষ করা পর্যন্ত চুপ থাকবে”।মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং ২১৭৭৮, সুনানে ইবেনে মাজাহ, ১১১১। হাদীসটি সহীহ।

সুতরাং ঐ খাদেমের কথা সঠিক নয়। কোন খুতবা চলাকালীন কথা বার্তা বা অন্য কোন কাজ করা যাবে না।